ওয়ানপ্লাস নিয়ে এলো পপ-আপ ক্যামেরাযুক্ত সেভেন প্রো

সাধারণত বছরে দুই বার ওয়ানপ্লাস তাদের ফ্ল্যাগশীপ ফোন উন্মোচন করে থাকে, মে ও অক্টোবর মাসে। তবে ২০১৯ এসে তারা একই সাথে দুইটি ফোন রিলিজ করার সিদ্ধান্ত নেয়। ফলশ্রুতিতে ওয়ানপ্লাস এ বছর উন্মোচন করলো সেভেন ও সেভেন প্রো নামে দুটি ফ্ল্যাগশীপ ফোন।

নতুন ওয়ানপ্লাস সেভেন প্রো ফোনের প্রধান আকর্ষণ এর ১৬ মেগাপিক্সেলের পপ আপ সেলফি ক্যামেরা। যার ফলে ডিসপ্লেতে নচ থাকছে না, আর বেজেলও থাকছে খুবই নগণ্য পরিমাণ। সাথে রয়েছে ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। এতে রয়েছে এখন পর্যন্ত ব্যবহৃত সবচেয়ে বড় ৬.৬৭ ইঞ্চির অ্যামোলেড ডিসপ্লে যার রেজুলেশন ৩১২০*১৪৪০ ও যা এইচডিয়ার১০+ সমর্থন করে। এর স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৯৩ শতাংশ।

ওয়ানপ্লাস সেভেন প্রো মডেলে রয়েছে তিনটি প্রধান ক্যামেরা যা ৪৮ মেগাপিক্সেলের ছবি তুলতে সক্ষম। ওয়ানপ্লাস একে পূর্ণাঙ্গ একটি ফোন হিসেবে দাবি করছে। প্রো মডেলে আরো থাকছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ প্রসেসর, ১২ গিগাবাইট র‌্যাম ও ২৫৬ গিগাবাইট স্টোরেজ। এতে আরো রয়েছে লিকুইড কুলিং টেকনোলজি। ওয়ানপ্লাস জানায়, তারা প্রো মডেলের একটি ৫জি ভার্সনও নিয়ে আসবে।

অন্যদিকে ওয়ানপ্লাস সেভেন মডেলে একই সুবিধা থাকলেও র‌্যাম থাকছে ৮ জিবি। একটি টিয়ারড্রপ নচ থাকবে এবং এর ডিসপ্লে সাইজ ৬.৪১ ইঞ্চি যা ২৩৪০*১০৮০ পিক্সেল সমর্থন করে।

উভয় ফোনেই ডলবি এটমস সাউন্ড সিস্টেম ইন্টিগ্রেট করা হয়েছে। ফোন দুটি পরবর্তী অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণ কিউ আপডেট পাবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। আগামী ২১শে মে থেকে এর বাণিজ্যিক বিক্রয় শুরু হবে। ওয়ানপ্লাস সেভেন প্রো এর দাম পরবে ৬৬৯ মার্কিন ডলার। তবে ওয়ানপ্লাস সেভেন এর দাম কিছুটা কম হবে জানালেও নির্দিষ্ট করে কোন দাম জানানো হয় নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*