মেট ৩০ প্রো এর ক্যামেরা – হুয়াওয়ে

66 / 100 SEO Score

মেট ৩০ প্রো স্মার্টফোনটি ফটোগ্রাফির ক্ষেত্রে ডিএক্সও মার্ক র্যাংকিংয়ের সর্বোচ্চ রেটিং অর্জন করেছে বলে দাবি করেছে স্মার্টফোন হুয়াওয়ে। তাদের তথ্য অনুযায়ী, মেট সিরিজের নতুন ফোনটি সুপার-সেনসিং সিনে ক্যামেরার জন্য ১২১ পয়েন্ট অর্জন করেছে। পাশাপাশি ফটো স্কোরের ক্ষেত্রে ১৩১ পয়েন্ট পেয়েছে ফোনটি।

হুয়াওয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ডিএক্সও মার্ক স্মার্টফোন ক্যামেরায় তোলা ছবির গুণগত মান বিচার করে র্যাংকিং প্রকাশ করে থাকে। প্রতিষ্ঠানটি হুয়াওয়ে মেট ৩০ প্রোর কোয়াড ক্যামেরাসহ অভিনব সুপার-সেনসিং ও সিনে ক্যামেরার জন্য র‍্যাংকিং ঘোষণা করে।

হুয়াওয়ে মেট ৩০ প্রোতে ৪০ মেগাপিক্সেলের সুপার-সেনসিং ক্যামেরা, ৪০ মেগাপিক্সেলের সিনে ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো ক্যামেরা ও একটি থ্রিডি ডেপথ সেনসিং ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে। সুপার-সেনসিং সিনে ক্যামেরাসহ ফোনটিতে রয়েছে আল্ট্রা-ওয়াইড নাইট-শটস, আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল শটস, পোর্টইট শটস ও প্রো-বোকেহ ইফেক্ট সুবিধা।

৪০ মেগাপিক্সেলের সুপার-সেনসিং ক্যামেরাটিতে আরওয়াইওয়াইবি কালার ব্যবহার করায় ফোনটি অনেক বেশি আলো ধারণ করতে পারবে। ফলে অল্প আলোতেও ছবি হবে নিঁখুত ও ঝকঝকে। আইএসপি ৫.০ ইমেজ সিগন্যাল প্রসেসর ব্যবহার করায় এ ফোন দিয়ে খুবই ভালো মানের ছবি ও ভিডিও ধারণ করা যাবে। ফোনটি দিয়ে সিনেমাটিক ভঙ্গিতে প্রফেশনাল ভিডিও ধারণ করা সম্ভব। কেননা এতে ১ / ১.৫৪ ইঞ্চির সেনসর ব্যবহার করা হয়েছে। খুব ধীর গতির ভিডিও ধারণের জন্য এতে ব্যবহার করা হয়েছে ৫১২০০ আইএসও। এ ফোন দিয়ে প্রতি সেকেণ্ডে ৭৬৮০টি ফ্রেম ধারণ করা যাবে।

চলতি মাসে বিশ্ববাজারে মেট ৩০ সিরিজ উন্মোচনের পর স্মার্টফোন দিয়ে ফটোগ্রাফি ও ভিডিওগ্রাফি নিয়ে নতুন করে আলোচনার তৈরি হয়েছে।

জার্মানির মিউনিখে মেট সিরিজে গত মাসে মেট ৩০ ও মেট ৩০ প্রো মডেলের স্মার্টফোনের ঘোষণা দেয় চীনা প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি। যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যকার বাণিজ্যযুদ্ধের ফলে গুগলের সফটওয়্যার ব্যবহার করার সুযোগ পায়নি হুয়াওয়ে। তারা বরাবরই বলে এসেছে, গুগলে অ্যান্ড্রয়েড ওএস তাদের প্রথম পছন্দ। তবে তাদের হাতে বিকল্পও রয়েছে। মেট ৩০ সিরিজ দিয়ে সেই বিকল্পের পথেই হেঁটেছে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি। নতুন স্মার্টফোনটিতে গুগলের জনপ্রিয় অ্যাপগুলো নেই। এটি অ্যান্ড্রয়েড ১০ ওএসের ভিত্তিতে তৈরি ইএমইউআই ১০ সফটওয়্যারে চলবে। এতে গুগলের সেবার পরিবর্তে হুয়াওয়ের নিজস্ব মোবাইল সেবাগুলো যুক্ত হয়েছে।

66 / 100 SEO Score

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*